ডায়াবেটিস রোগীর পায়ের যত্ন

ডায়াবেটিস রোগীর পায়ের যত্ন

আপনার যদি ডায়াবেটিস হয়ে থাকে, তাহলে পায়ের যত্ন নেয়াটা আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই আর্টিকেলে আপনি কীভাবে পায়ের যত্ন নিতে পারেন এবং কখন ডাক্তারের কাছে যাবেন সে বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

ডায়াবেটিসের কারণে আপনার পায়ের রক্ত চলাচল কমে গিয়ে সেখানে বোধশক্তি হারিয়ে যায়। একে বলা হয় পেরিফেরাল নিউরোপ্যাথি (Peripheral neuropathy)। এর অর্থ হল, আপনি পায়ে কোনোভাবে আঘাত পেলে তা হয়তো সহজে সারবে না, এমনকি পায়ে আঘাত পেলে আপনি হয়তো সেটা বুঝতেও পারবেন না।

গুরুত্বপূর্ণ তথ্য
আপনার ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারলে এসব জটিলতার ঝুঁকি অনেকটাই কমে আসবে। সেই সাথে ব্লাড প্রেশার ও রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রার দিকে খেয়াল রাখবেন, এবং প্রয়োজনে ওষুধের সাহায্যে এগুলো নিয়ন্ত্রণে রাখবেন।

ডায়াবেটিস রোগীর পায়ের যত্নের জন্য ৭টি সহজ টিপস

১। বছরে অন্তত একবার পায়ের জন্য বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দেখান।

২। আপনার পা সবসময় পরিষ্কার ও ইনফেকশনমুক্ত রাখুন।

৩। ভালোভাবে লাগে বা ফিট হয় এমন জুতা পরুন, চাপাচাপি কিংবা ঘষাঘষি করতে হয় এমন জুতা পরবেন না। যেসব জুতা পায়ে ঠিকমতো লাগেনা বা ফিট হয় না, সেগুলো পরার কারণে পায়ে কড়া পড়া (calluses), ঘা/আলসার এবং নখের সমস্যা হতে পারে।

৪। কখনোই খালি পায়ে হাঁটবেন না, বিশেষ করে বাগানে হাঁটার সময় কিংবা ছুটি কাটাতে সমুদ্রসৈকতে গেলে ব্যাপারটি অবশ্যই মাথায় রাখবেন। এতে করে আপনি পায়ে কাটা-ছেঁড়া হবার বা আঘাত পাওয়ার ঝুঁকি এড়িয়ে চলতে পারবেন।

৫। পায়ের ওপর পা তুলে বসা থেকে বিরত থাকবেন, এভাবে বসলে আপনার পায়ের রক্ত চলাচলে বাধা সৃষ্টি হতে পারে।

৬। নিয়মিত নখ কাটুন।

৭। পায়ের চামড়া কড়া পড়ে শক্ত হয়ে গেলে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে তার চিকিৎসা করান।

আপনার পা বাঁচাতে ধূমপান ছেড়ে দিন

আপনার যদি ডায়াবেটিস থাকে তাহলে আপনার জন্য ধূমপান ছেড়ে দেওয়া খুবই জরুরী। ধূমপান শরীরের রক্ত চলাচলে বাধা সৃষ্টি করে, বিশেষ করে যাদের ডায়াবেটিস আছে তাদের ওপর এর প্রভাব হয় আরও গুরুতর। ধূমপান পায়ের যেকোনো সমস্যাকে অনেক বেশি মারাত্মক করে তুলতে পারে।

ধূমপান ছাড়তে চাইছেন, কিন্তু পারছেন না? আপনার লক্ষ্যে পৌঁছুতে আমাদের ভিডিওটি সাহায্য করতে পারে :

পুষ্টিকর খাবার খান এবং শরীর সচল রাখুন

ডায়াবেটিস থাকলে আপনাকে একটি সুষম, পুষ্টিকর খাদ্যাভ্যাস মেনে চলতে হবে, সেই সাথে আপনার শরীরকে সচল রাখতে হবে। এতে করে আপনার ডায়াবেটিস থাকবে আপনার নিয়ন্ত্রণে। এই উপদেশগুলো মেনে চললে তা আপনার পা এবং পায়ের পাতার নানা সমস্যার ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করবে।

কখন ডাক্তারের কাছে যেতে হবে?

যদি আপনার পায়ের ঘা, ফোস্কা বা আঘাত সহজে না সারে, তাহলে আপনাকে ডাক্তারের কাছে যেতে হবে।

নিচের চারটি ক্ষেত্রে আপনার দ্রুত ডাক্তারের কাছে যাওয়া উচিত:

১। যদি আপনি লক্ষ্য করেন যে আপনার পায়ের চামড়া কেটে বা ফেটে গেছে, কিংবা ক্ষত থেকে কোন তরল গড়িয়ে পড়ছে,

২। পায়ের কোনো অংশ, এমনকি পুরো পায়ের চামড়ার রঙ বদলে গিয়ে যদি আরও বেশি লাল, নীল, ফ্যাকাশে বা কালচে হয়ে যায়,

৩। যেখানে ফোস্কা বা ক্ষত ছিল সেই জায়গা যদি আরও ফুলে যায়,

৪। ঘা বা আলসারের আশেপাশে, অথবা যেসব জায়গায় সমস্যা হতে পারে বলে খেয়াল রাখতে বলা হয় সেসব জায়গা যদি ফুলে যায় বা লাল হয়ে যায়।